মজলিস আনসার সুলতানুল কালাম

হযরত ইমাম মাহদী (আঃ) বলেছেনঃ
“আল্লাহতা’লা আমার নাম রেখেছেন ‘সুলতানুল কলম’ মানে কলমের বাদশাহ্‌। আর আমার কলমের নাম দিয়েছেন যুলফিকার আলী অর্থ্যাৎ আলীর তরবারী” (আল হাকাম)।
হযরত ইমাম মাহদী (আঃ) জিহাদ ছিলো কলমের জিহাদ। আর তাঁর এই অনিন্দ সুন্দর রক্তপাতহীণ জিহাদের মাধ্যমে তিনি শত্রুদের প্রায় ৩০০০ অভিযোগের উত্তর দিয়েছেন। আর তারপরই আমাদের সৃষ্টিকর্তা মহান খোদা তাঁর প্রেরীত সত্য এই নবীকে সুলতানুল কলমের উপাধী দিয়েছেন।

হযরত মসিহ মাওউদ (আঃ) আরও বলেনঃ
“কলমের দ্বারা আজ ইসলামকে আক্রমন করা হচ্ছে তাই কলমের দ্বারাই এই আক্রমনের জবাব দিতে হবে। কারণ সর্বশক্তিমান খোদা পবিত্র কুরআন শরীফে বলেছেন শত্রুরা তোমাদের বিরুদ্ধে যে অস্ত্র ব্যবহার করবে, তোমাদেরকে সেই অস্ত্র দিয়ে তাদের মোকাবেলা করার প্রস্তুতি নিতে হবে। চিন্তা করে দেখ আজ ইসলামের শত্রুরা কি অস্ত্র ব্যবহার করছে। তারা তো সেনাবাহীনী নিয়ে আক্রমন করছে না। তারা বই পুস্তক ছাপাচ্ছে। তাই আমাদেরও কলম হাতে তুলে নিয়ে বই পুস্তক প্রকাশের মাধ্যমে এর জবাব দিতে হবে (মালফুযাত)”।

আমরা যদি একটু চিন্তা করি আজ কিভাবে ইসলামের শত্রুরা আজকে ইসলামকে আক্রমন করছে? তাহলে হযরত ইমাম মাহদী (আঃ) এর উপরের কথাটাই সত্য প্রমাণীত হয়। আজকে ইসলাম এর শত্রুরা ইসলামের দুর্নাম করার জন্যে বই পুস্তক, ব্লগ এবং সামাজিক যোগাযোগের সাইট গুলোকে ব্যবহার করছে। তাই আমাদেরকেও এর মোকাবিলা লিখার মাধ্যমে করতে হবে।

আমাদের প্রিয় খলীফা হুযুর (আইঃ) প্রত্যেক খোদ্দাম ও তিফলকে এই সুলতানুল কলমের সক্রীয় সদস্য হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। তাই প্রত্যেক খোদ্দাম আর আতফালকে হুযুরের এই আহবানে সাড়া দিয়ে মজলিস আনসার সুলতানুল কলমের সদস্য হওয়ার আহবান করা যাচ্ছে।

সদস্য হওয়ার জন্য আবেদনের ফরম এখান থেকে ডাউনলোড ও পূরণ করে এই ইমেইল এড্রেস (masqbangladesh@gmail.com) অথবা নিচের ঠিকানায় পাঠাতে অনুরোধ করছি।

যোগাযোগের ঠিকানাঃ

পরিচালক,
মজলিস আনসার সুলতানুল কালাম,
মজলিস খোদ্দামুল আহমদীয়া, বাংলাদেশ,
৪নং বকশী বাজার রোড,
ঢাকা-১২১১।